article.title
 Togumogu
 Jun 12, 2019
 1022
গর্ভাবস্থায় হেপাটাইটিস বি; কি করণীয়?



নিশি প্রথমবারের মত মা হতে চলেছে। আনন্দের সীমা নেই অনাগত সন্তানকে ঘিরে। এরইমাঝে সে রেগুলার ডাক্তার চেক আপ এ গিয়ে জানতে পারলো সে হেপাটাইটিস বি ভাইরাস এ আক্রান্ত। নিশি সহ পুরো পরিবার এখন হতবাক। কিছুই বুঝতে পারছে না এখন তারা কি করবে! আর নবাগত সন্তানেরই বা কি হবে? নিশির মত বাংলাদেশে প্রায় ৩.৫% গর্ভবতী মায়েরা হেপাটাইটিস বি ভাইরাস বহন করছে (ন্যাশনাল লিভার ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এর মতে)। তাই প্রত্যেক গর্ভবতী মায়ের উচিৎ এই রোগ সম্পর্কে জেনে রাখা যাতে গর্ভাবস্থায় সঠিক সিদ্ধান্ত সে নিতে পারে। বি ভাইরাস নিয়ে টগুমগুতে বিস্তারিত লিখেছেন চিকিৎসক তাজিন জান্নাত সিনথিয়া।


হেপাটাইটিস বি ভাইরাস কী কী রোগ সৃষ্টি করে?

জন্ডিস থেকে শুরু করে লিভার সিরোসিস, হেপাটিক ফেইলর, এমনকি লিভার ক্যান্সার এর মত রোগ সৃষ্টির জন্য দায়ী এই বি ভাইরাস।‌


কিভাবে সংক্রমণ হয়?

প্রধানত রক্তের মাধ্যমে ছড়ায়, যেমন - ১.অনিরাপদ রক্ত সঞ্চালনকালে, ২.ডায়ালাইসিস এর সময়, ৩.দাঁতের চিকিৎসা কালে, ৪. অন্যের ব্যবহৃত সূচ, সিরিঞ্জ ব্যবহার করলে, ৫. সূচ এর মাধ্যমে গ্রুপ এ মাদক গ্রহণ করলে, ৬. অনিরাপদ সহবাস এর ক্ষেত্রে যদি পার্টনার বি ভাইরাস এ আক্রান্ত রোগী হয়ে থাকে।


গর্ভের বাচ্চা কি আক্রান্ত হতে পারে?

জরিপে দেখা যায় হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত গর্ভবতী মায়েদের মধ্যে প্রায় ৯০% এর শিশু এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে থাকে। গর্ভকালীন সময়ে প্লাসেন্টা থেকে রক্তক্ষরণ হয়ে বা প্রসব কালে শিশু আক্রান্ত হয়ে থাকে। ‌


মা আক্রান্ত হলে কি চিকিৎসা নিবে?

অবশ্যই চিকিৎসা নেবে। আজকাল অনেক ভাল ঔষধ বেরিয়েছে যা গর্ভকালে এবং ব্রেস্টফিডিং কালে গ্রহণ করা নিরাপদ।


বাচ্চা আক্রান্ত হলে কি হবে?

বলা হয়ে থাকে নবজাতক যদি হেপাটাইটিস বি ভাইরাস এ আক্রান্ত হয় তবে তা থেকে লিভার ফেইলর, লিভার সিরোসিস এবং লিভার ক্যান্সার এ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ৭০ ভাগ এরও বেশি। ‌


কি কি করণীয়?

বলার অপেক্ষা রাখে না যে পুরো প্রেগন্যান্সি সময়ে ডাক্তার এর চেক আপ এ থাকতে হবে। সন্তানের ডেলিভারি হাসপাতালে এ করাতে হবে এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হল সন্তান ডেলিভারির ৭২ ঘণ্টার মাঝে তাকে বি ভাইরাস কে মোকাবেলা করার জন্য দুটো টিকা অবশ্যই দিতে হবে। এই টিকা সব জায়গায় পাওয়া নাও যেতে পারে তাই আগেই এর ব্যবস্থা করে রাখতে হবে। বাচ্চা যদি কোন ভাবে আক্রান্ত হয়ে যায় তবে অবশ্যই চিকিৎসা নিতে হবে, কারন এই রোগ প্রতিকার যোগ্য।


বাচ্চা কি বুকের দুধ খাবে?

হ্যাঁ, অবশ্যই খাবে এবং পুরো ৬ মাস পর্যন্ত শুধুমাত্র বুকের দুধ খাবে।


মুখের লালার মাধ্যমে কী ছড়ায?

না, ছড়ায় না। তাই বাবুকে আদর করতে কোন মানা নেই। আসুন আমরা হেপাটাইটিস বি ভাইরাস নিয়ে সচেতন হই। নিজের অসাবধানতা, অসচেতনতা এবং অজ্ঞতার জন্য আমাদের সন্তানকে যেন বি ভাইরাস এ আক্রান্ত হয়ে লিভার ক্যান্সার এর মত পরিণতি বরণ করতে না হয়।


শিশু স্বাস্থ্য এর জন্য রয়েছে আমাদের Parent & Child Counseling সহ আরও অনেক সার্ভিস। সেগুলো জানতে ভিসিট করুন https://togumogu.com/en/parenting-services


ToguMogu App
Related Articles
Please Come Back Again for Amazing Articles
Related Products
Please Come Back Again for Amazing Products