ToguMogu
ToguMogu
article.title
 Jun 11, 2019
 4889

শিশুকে নিরাপদে গোসল করানোর টিপস

১২ মাস থেকে ২৪ মাস বয়সী শিশুদের সারাক্ষণই চোখে চোখে রাখতে হয়। এই বয়সটাতেই শিশুরা হাটতে শেখে, কথা বলতে শেখে, বাইরের জগত চিনতে শিখে এবং চঞ্চলতাও বৃদ্ধি পায়। গোসলের সময়টায় এই বয়সী সব শিশুই খুব মজা পায়। এ সময় তারা খুবই উত্তেজিত থাকে। তাই অনেক ক্ষেত্রেই তাদের সামলানো কঠিন হয়ে দাড়ায়। এ সময় Safe bathing এর জন্যে কি কি নিরাপত্তা গ্রহন করা উচিৎ তা সম্পর্কে কিছু টিপস নিচে দেয়া হলঃ

১. প্রথমত কখনই তাদের গোসলের সময় এক সেকেন্ডের জন্যেও একা রেখে কোথাও যাবেন না। তার গোসলের সময় যা যা জিনিস দরকার হতে পারে তা তা আগে থেকেই হাতের কাছে এনে রাখুন। তাকে গোসলখানায় ঢুকানোর পর থেকে আরম্ভ করে গোসল শেষ হওয়া পর্যন্ত তার সাথেই থাকুন।

২. পানির ট্যাপ ছেড়ে রাখা অবস্থায় কখনই আপনার শিশুকে বাথটাবের মধ্যে বসাবেন না। কারণ পানির তাপমাত্রা হঠাৎ করেই পরিবর্তন হতে পারে অথবা অতিরিক্ত পানি ভর্তি হয়ে ডুবে যাওয়ারও সম্ভাবনা থাকতে পারে।

৩. আপনারা যেই বাথটাবে গোসল করেন তাকে যদি সেই বাথটাবেই গোসল করাতে চান সেক্ষেত্রে নিচে রাবারের ম্যাট জাতিও কিছু ব্যবহার করুন। তা না হলে শিশুর পিছলে পড়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে। আরও সাবধানতা অবলম্বন করতে চাইলে নিচে ছোট কুশন দিয়ে দিতে পারেন। এর কারণ হল সামান্য অসাবধানতার জন্যে যদি কখনও পিছলেও পড়ে তাহলে যেন মাথায় ব্যাথা না লাগে।

৪. পানির তাপমাত্রা ২৬ থেকে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখুন। মনে রাখবেন বাচ্চাদের চামড়া খুবই নরম হয়। তাদের সহ্য ক্ষমতা একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের সহ্য ক্ষমতার চেয়ে অনেক গুন কম। এ ব্যাপারটি অবশ্যই মাথায় রাখবেন।

৫. বাথটাবের পানির পরিমাণ যেন কখনই আপনার শিশুর কোমরের উপরে না উঠে।

৬. বাজারে বাথ রিং সাকশন নামে এক ধরনের প্রোডাক্ট পাওয়া যায়। যেটিকে বাথটাবের উপর রেখে তাতে শিশুকে বসিয়ে রাখা যায়। এটি অনেকটাই নিরাপদ।এতে শিশুর পিছলে পরে যাওয়ার ভয় থাকে না। তবে এর ভরসায় শিশুকে ছেড়ে দিলে চলবে না। এতে বসিয়ে রাখলেও আপনাকে সর্বক্ষণ তার উপর নজর রাখতে হবে।

৭. অনেক শিশুই বাথটাবের মধ্যে দাড়িয়ে থাকতে পছন্দ করে। আপনার শিশুও যদি এমন করতে চায় তবে তাকে বসে থাকা শেখান। কখনই তাকে বাথটাবে দাঁড়া করিয়ে রাখবেন।

 

ToguMogu App